ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ  রোববার ● ১৬ মে ২০২১ ● ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
ই-পেপার  রোববার ● ১৬ মে ২০২১
শিরোনাম: প্রাথমিক স্কুলের ছুটি বাড়ল ২৯ মে পর্যন্ত       পদত্যাগ করলেন ডায়ানার সাক্ষাৎকার নেওয়া বিবিসির সেই সাংবাদিক       শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে ‘হাসিনা: এ ডটার’স টেল’       মহাকাশে সিনেমার শুটিং: প্রতিযোগিতা আমেরিকা-রাশিয়ার       গাজায় আল জাজিরা-এপির কার্যালয় ভবন গুঁড়িয়ে দিল ইসরায়েল       শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ২৩ মে খুলছে না       তিন দিনের রিমান্ডে জামায়াত নেতা শাহজাহান চৌধুরী      
খালেদা জিয়ার শরীরে ব্যথা নেই, ২-৩ দিন পর ফের পরীক্ষা
নিউজ ডেস্ক
Published : Tuesday, 20 April, 2021 at 8:42 PM

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেও শুরুর দিকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শরীরে তেমন উপসর্গ দেখা যায়নি। চলতি সপ্তাহের প্রথম দুদিন সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর শরীরে জ্বর এলেও গত প্রায় ৬০ ঘণ্টায় তার অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। বর্তমানে তিনি মোটামুটি সুস্থ আছেন। গত তিন দিন ধরে তার শরীরে কোনো ব্যথা নেই। তাই আগামী ২-৩ দিন পর তিনি করোনা মুক্ত হয়েছেন কি-না, তা জানতে আবারও পরীক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্যরা।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসকরা বলছেন, যেকোনো ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হলে ১৪-১৫ দিন পর আবার পরীক্ষা করা হয় যে তার শরীরে ভাইরাসের উপস্থিতি আছে কি-না। আজ খালেদা জিয়ার করোনা আক্রান্তের ১২তম দিন শেষ হবে। ফলে ১৪ অথবা ১৫ দিনের মাথায় তার আবার পরীক্ষা করা হবে।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, ‘ম্যাডামের শরীর, আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছেন। গত তিন দিন ধরে তার শরীরে কোনো ব্যথা নেই। আজকে রাতে আমরা আবার তাকে দেখতে যাব।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক খালেদা জিয়ার আরেক চিকিৎসক বলেন, ‘ম্যাডামের শারীরিক অবস্থা ভালো। কিন্তু তিনি এখনই করোনামুক্ত এটা তো পরীক্ষার আগে বলা যাবে না। সাধারণত করোনা আক্রান্তের ১৪ দিনের মধ্যে মানুষ আবার এই ভাইরাসমুক্ত হয়ে যায়। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে এক মাসও সময় লাগে। তাই আমরা ম্যাডামের ১৪ অথবা ১৫ দিনের মাথায় তার আবার করোনা পরীক্ষা করব।’

এর আগে সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাত ১২টার দিকে খালেদা জিয়াকে দেখে এসে ডা. জাহিদ বলেন, ‘বেগম জিয়ার গত ৪২ ঘণ্টা জ্বর ছিল না। এটি একটি ভালো দিক। বিষয়টি আমরা ইতিবাচক হিসেবেই দেখছি। তার অবস্থা আলহামদুলিল্লাহ ভালো। ডাক্তারি ভাষায় তার বিপি (রক্তচাপ) অত্যন্ত গ্রহণযোগ্য। তার অন্যান্য উপসর্গও বৃদ্ধি পায়নি অথবা নতুনভাবে দেখা দেয়নি।’

গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। তিনি ছাড়াও তার বাসভবন ফিরোজার আরও ৮ জন ব্যক্তিগত স্টাফ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়। তাদের চিকিৎসাও এখানে চলছে। করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে বড় ছেলে তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমানের নির্দেশনায় চিকিৎসা চলছে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর। গত ১৫ এপ্রিল রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে খালেদা জিয়ার সিটিস্ক্যান করা হয়। সেটির ফলাফলও ভালো এসেছে বলে জানিয়েছেন দলটির নেতাকর্মী ও চিকিৎসায় নিয়োজিতরা।

৭৫ বছর বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত। প্রায় আড়াই বছরের মতো কারাগারে থাকার পরে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু পর পরিবারের আবেদনে সরকার গত বছরের ২৫ মার্চ ‘মানবিক বিবেচনায়’ শর্তসাপেক্ষে তাকে সাময়িক মুক্তি দেয়। দুই দফায় এ মুক্তির মেয়াদও বাড়ানো হয়েছে। তখন থেকে তিনি গুলশানে নিজের ভাড়া বাসা ফিরোজায় থেকে ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন।

একে





সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮
ই-মেইল : বার্তা- [email protected] বিজ্ঞাপন- [email protected]
দৈনিক আজকালের খবর লিমিটেডের পক্ষে গোলাম মোস্তফা কর্তৃক বাড়ি নং-৫৯, রোড নং-২৭, ব্লক-কে, বনানী, ঢাকা-১২১৩ থেকে প্রকাশিত ও সোনালী প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার রোড (২/১/এ আরামবাগ), ইডেন কমপ্লেক্স, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhobor.com, www.eajkalerkhobor.com