ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ  শুক্রবার ● ৭ মে ২০২১ ● ২৪ বৈশাখ ১৪২৮
ই-পেপার  শুক্রবার ● ৭ মে ২০২১
শিরোনাম: বিস্ফোরণে মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট নাশিদ আহত       খালেদা জিয়ার নতুন পাসপোর্ট দু-এক দিনের মধ্যে        খালেদা জিয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হচ্ছে না আজ: আইনমন্ত্রী       সংসদ ভবনে ‘তলোয়ার নিয়ে’ হামলা, আনসার আল ইসলামের দুই সদস্য গ্রেফতার       ভারতে একদিনে মৃত্যু ও আক্রান্তের নতুন রেকর্ড       বিশ্বে আক্রান্ত ছাড়িয়েছে ১৫ কোটি, মৃত্যু সাড়ে ৩২ লাখ       তিন সপ্তাহ পর রাজধানীতে গণপরিবহন চালু       
নদীতীরে চাষ হচ্ছে মরিচ, দামে খুশি কৃষক
রহিদুল ইসলাম রাইপ, রাণীনগর
Published : Thursday, 8 April, 2021 at 8:58 PM, Update: 08.04.2021 8:59:53 PM

নওগাঁর রাণীনগরের বিভিন্ন স্থানে চাষ হচ্ছে হরেক রকমের ফসল। আগে যে সব ফসল চাষের কথা কখনো কল্পনাও করেনি। এই অঞ্চলের কৃষকরা বর্তমানে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির মাধ্যমে ও কৃষি বিভাগের সার্বিক সহযোগিতায় সেই সব লাভজনক ফসল চাষ করে এই অঞ্চলের অবহেলিত কৃষকরা বর্তমানে অনেক লাভবান হচ্ছেন। মরিচ সবজির মধ্যে অন্যতম একটি প্রয়োজনীয় ও দামি ফসল।

বর্তমানে উপজেলার ছোট যমুনা ও আত্রাই নদীর পাড়ের পলি ও বেলে-দোঁআশ মাটির উর্বর জমিতে রেকর্ড পরিমাণ জমিতে মরিচের আবাদ হয়েছে। ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় এই অঞ্চলের কৃষকের চোখে-মুখে স্বস্তির হাসি ফুটেছে। বিস্তৃত এলাকাজুড়ে মরিচ গাছের সবুজের সমারোহের এ মনকাড়া দৃশ্য বিমোহিত করছে সকলকে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে উপজেলার আটটি ইউনিয়নে ২০০ বিঘা জমিতে রেকর্ড পরিমাণ মরিচের চাষ হয়েছে। গত মৌসুমে একাধিক বন্যায় ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়ে এই ফসলটি। সেই ক্ষতি থেকে ঘুরে দাঁড়াতে কৃষকরা আবার কৃষি বিভাগের সার্বিক সহযোগিতায় উপজেলার আটটি ইউনিয়নের মরিচ চাষের দিকে ঝুঁকে পড়েছেন। ছোট যমুনা ও আত্রাই নদীসহ অন্যান্য নদীর অববাহিকায় দেখা গেছে মরিচ চাষের দৃশ্য। 

উপজেলার আতাইকুলা গ্রামের মরিচ চাষি একরামুল হক বলেন, আত্রাই নদীর তীরে আমি একবিঘা জমিতে মরিচ চাষ করেছি। এতে আমার ব্যয় হয়েছে ১৫ হাজার টাকা। তবে এ পর্যন্ত ৩০ হাজার টাকার মরিচ বিক্রি করেছি। তবে মৌসুম শেষ হওয়া পর্যন্ত আরো প্রায় ২০ হাজার টাকার মরিচ বিক্রি করতে পারবেন বলেও আশা করছেন তিনি। 

উপজেলা কৃষিবিদ শহীদুল ইসলাম বলেন, চলতি মৌসুমে উপজেলায় রেকর্ড পরিমাণ জমিতে মরিচের চাষ হয়েছে। তবে চলতি মৌসুমে মরিচের গাছে রোগবালাইয়ের আক্রমণ কম হয়েছে। এ ছাড়াও কৃষকরা ফলন ও দামে অনেক লাভবান হয়েছে। আমরা আশা করছি আগামী মৌসুমে আরো বেশি জমিতে মরিচের চাষ হবে। মরিচ চাষে কৃষকের করণীয় সম্পর্কে মাঠ পর্যায়ে আমাদের কৃষি কর্মকর্তারা সার্বিক পরামর্শ ও সহযোগিতা দিয়ে আসছেন।

আজকালের খবর/এএইস


সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮
ই-মেইল : বার্তা- [email protected] বিজ্ঞাপন- [email protected]
দৈনিক আজকালের খবর লিমিটেডের পক্ষে গোলাম মোস্তফা কর্তৃক বাড়ি নং-৫৯, রোড নং-২৭, ব্লক-কে, বনানী, ঢাকা-১২১৩ থেকে প্রকাশিত ও সোনালী প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার রোড (২/১/এ আরামবাগ), ইডেন কমপ্লেক্স, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhobor.com, www.eajkalerkhobor.com