ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ  বুধবার ● ২১ এপ্রিল ২০২১ ● ৮ বৈশাখ ১৪২৮
ই-পেপার   বুধবার ● ২১ এপ্রিল ২০২১
শিরোনাম: আগস্ট- সেপ্টেম্বরের আগে টিকা রপ্তানি করতে পারবে না ভারত: আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের       হেফাজতের আশার গুড়ে বালি: অসুস্থতার ভান       খালেদা জিয়ার শরীরে ব্যথা নেই, ২-৩ দিন পর ফের পরীক্ষা       বুধবার থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চালু        রাশিয়া বাংলাদেশে করোনা টিকা উৎপাদনের প্রস্তাব দিয়েছে: মোমেন       ইন্দোনেশিয়ায় আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ভূমিকম্প       লকডাউনে যুবকের সঙ্গে ধস্তাধস্তি করা সেই এসআই ক্লোজড      
ধসে পড়া সেতু নতুন করে হবে
জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি
Published : Tuesday, 2 March, 2021 at 8:00 PM

সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর সড়কের কোন্দানালা খালের ওপর ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন একটি সেতু ধসে খালের মধ্যে পড়ে যাওয়ার ঘটনায় তোলপাড় চলছে। সেখানে নতুন করে আবার সেতু নির্মাণ করা হবে।

সোমবার সড়ক ও জনপথ বিভাগের অতিরিক্ত প্রকৌশলী শিশির রায়ের নেতৃত্বে তিন সদস্যের কমিটি সরেজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। রবিবার বিকালে গার্ডার বসানোর সময় হাইড্রোলিক জ্যাক বিকল হয়ে সেতুটি ধসে যায়। তবে এলাকাবাসী নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ করেন।

মঙ্গলবার সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান জানান, আজ বুধবার থেকে ধসে যাওয়া সেতু অপসারণের কাজ শুরু করা হবে। অপসারণ কাজ শেষ হলে টিকাদারি প্রতিষ্ঠান এমএম বিল্ডার্স নতুন করে সেতুটির কাজ শুরু করবে। তিনি জানান, গার্ডার বসানোর সময় হাইড্রোলিক জ্যাক বিকল হয়ে সেতুটি ধসে গেছে।

মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন এই ব্রিজের ৭০ ভাগ কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছিল। 

জানা যায়, ২০২০ সালে সুনামগঞ্জের পাগলা-জগন্নাথপুর-রানীগঞ্জ সড়কে জরাজীর্ণ সেতুগুলো ভেঙে ১১০ কোটি টাকা ব্যয়ে সাতটি সেতু নির্মাণের কাজ শুরু করে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। কাজ বাস্তবায়নের দায়িত্ব পায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এমএম বিল্ডার্স।

সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান আরো জানান, নিম্নমানের সামগ্রী নয়, মেকানিক্যাল কারণে সেতুর গার্ডার ধসে গেছে। সেতুর মূল কাঠামোর কোনোরূপ ক্ষতি হয়নি। ধসে যাওয়া গার্ডারগুলো ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ঢাকার এমএম বিল্ডার্স তার নিজ খরচে অপসারণ করে নতুন করে গার্ডারগুলো বসিয়ে দেবে। তবে তাদের এ কাজের বিলও দেওয়া হয়নি। প্রাক্কলন অনুযায়ী তাদের সঠিকভাবে কাজ করতে হবে। নতুবা বিল পাবে না।

আজকালের খবর/এএইস


সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮
ই-মেইল : বার্তা- [email protected] বিজ্ঞাপন- [email protected]
দৈনিক আজকালের খবর লিমিটেডের পক্ষে গোলাম মোস্তফা কর্তৃক বাড়ি নং-৫৯, রোড নং-২৭, ব্লক-কে, বনানী, ঢাকা-১২১৩ থেকে প্রকাশিত ও সোনালী প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার রোড (২/১/এ আরামবাগ), ইডেন কমপ্লেক্স, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhobor.com, www.eajkalerkhobor.com