বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪
দৌলতপুরে আমন চাষের ফলন নিয়ে চিন্তিত চাষি
আব্দুল আলীম সাচ্চু, দৌলতপুর
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, ৭:০৭ PM
অনাবৃষ্টি, হালচাষ, শ্রমিক মজুরি, সার-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে লোকসানের শঙ্কা মাথায় নিয়ে আমনের লক্ষ্য মাত্রা পূরণ হয়েছে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে। বৃষ্টিনির্ভর আমন চাষ এবার পুরোপুরি সেচের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে চাষিদের। এরই মধ্যে উপজেলাজুড়ে আমন খেতে দেখা দিয়েছে গোড়া পচা রোগ ও মাজরা পোকার আক্রমণ। 

আমনচাষিরা জানিয়েছেন, বিভিন্ন কীটনাশক প্রয়োগ করা হলেও কাজে আসছে না। যদি এখনই মাজরা পোকার আক্রমণ ও গোড়া পচা রোগ দমন করা না যায়, তাহলে আমনের ফলন নিয়েও আশঙ্কা করছেন তারা।

এদিকে কৃষি বিভাগ বলছে চাষিদের সব ধরনের সহায়তার পাশাপাশি পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন তারা। কৃষি বিভাগের দেওয়া তথ্য বলছে এবার উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে আমনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিলো ১৯ হজার ৮৭০ হেক্টর, চাষ হয়েছে ১৯ হাজার ৮৭৫ হেক্টর জমিতে যা এবারের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়েছে। এছাড়া আমন চাষিদের মাঝে সরকারি সহায়তা দেওয়া হয়েছে ২ হাজার ২৫০ জন চাষিকে। এবার ফলনের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৭০ হাজার ৫৯২ টন চাল।

উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের হোসেনাবাদ এলাকার চাষি আসারুল ইসলাম জানান, এবার তার ১ বিঘা আমন চাষে এখন পর্যন্ত খরচ হয়েছে ১২ হাজার টাকা। মজুরি খরচ বিঘাপ্রতি ৬ জনকে দুই হাজার ৪০০ টাকা, চারাপ্রতি বিঘাতে লেগেছে দুই হাজার ৫০০ টাকা, সেচ খরচ ১ হাজার ৫০০ টাকা, জমি চাষের খরচ এক হাজার টাকা, সার ও কীটনাশকে খরচ হয়েছে এখন পর্যন্ত ৪ হাজার ৫০০ টাকা। ফসল ঘরে তোলা পর্যন্ত কত খরচ হবে কে জানে। 

একই ইউনিয়নের ফ্যাক্টরিপাড়া মাঠের চাষি জিল্লুর রহমানের জানান, আমন খেতে পোকা দমনের গত দুইদিন আগেও স্প্রে করেছি কিন্তু পোকার উপদ্রব এখনো কমেনি তাই আজ আবার স্প্রে করছি। পোকা না সারাতে পারলে এবার ফলও ভালো হবে না। মশাউড়া এলাকায় আরেক আমন চাষি রফিকুলের বলেন, পুরো মাঠের ধানে গোড়া পচা রোগ ও মাজরা পোকার আক্রমণ হয়েছে। তা ছাড়া বৃষ্টি কম হওয়ায় ধান কম বাড়ছে। ধান পরিপূর্ণ পানি পেলে পোকার আক্রমণ কমে যাবে আর ধান বাড়তেও থাকবে। 

উপজেলার গড়ের মাঠের চাষি আব্দুল আজিজ বলেন, আবাদে প্রচুর খরচ এখন বৃষ্টির প্রয়োজন খুব, পোকায় ধান গাছ নষ্ট করে দিচ্ছে। এবার ফলন কেমন হবে বুঝতে পারছি না। পোকা না সারাতে পারলে এবার লোকসান গুনতে হবে।

এ বিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম জানিয়েছেন, বৃষ্টিপাত কম হওয়ায় এবার আমন চাষের খরচ বাড়বে। এছাড়া পোকার উপদ্রব দেখা দিয়েছে চাষিদের পরামর্শের পাশাপাশি সরকারি সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এবারের আমন মৌসুমে ২ হাজার ২৫০ জন চাষিকে সরকারি সহায়তার বিজ ও সার প্রদান করা হয়েছে। 

আজকালের খবর/ওআর








সর্বশেষ সংবাদ
মার্কিন শ্রমনীতি পোশাক রপ্তানিতে নেতিবাচক অবস্থা তৈরি করতে পারে: পররাষ্ট্র সচিব
স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজাহান ভূঁইয়ার কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা-হয়রানি
একদিনে দশটি পথসভা, উঠান বৈঠক ও একটি জনসভা করেন সাজ্জাদুল হাসান এমপি
নতুন বছরে সুদহার বাড়ছে
শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রেখেই আজকের উন্নত বাংলাদেশ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
রাজপথের আন্দোলনে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা হবে: মুরাদ
অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে অনন্য ভূমিকায় ইসলামী ব্যাংক
ইতিহাসের মহানায়ক: একটি অনন্য প্রকাশনা
নতুন বই বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
এক দিনে সারাদেশে ২১ নেতাকে বহিষ্কার করল বিএনপি
Follow Us
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮, ই-মেইল : বার্তা বিভাগ- newsajkalerkhobor@gmail.com বিজ্ঞাপন- addajkalerkhobor@gmail.com
কপিরাইট © আজকালের খবর সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft