বুধবার ৪ অক্টোবর ২০২৩
আমেরিকায় না গেলে কিচ্ছু আসে যায় না: শেখ হাসিনা
নিউজ ডেস্ক
প্রকাশ: শনিবার, ৩ জুন, ২০২৩, ৭:১৭ PM আপডেট: ০৩.০৬.২০২৩ ৯:৪৩ PM
প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা কারও মুখাপেক্ষী হয়ে নয়, বাংলাদেশ নিজের পায়ে চলবে বলে মন্তব্য করে বলেছেন ‘আমরা নিজের পায়ে চলবো। নিজের দেশকে গড়ে তুলবো। কে আমাদের ভিসা দেবে না, নিষেধাজ্ঞা দেবে— ও নিয়ে মাথা ব্যথা করে লাভ নাই। ২০ ঘণ্টা প্লেনে জার্নি করে, আটলান্টিক পার হয়ে ওই আমেরিকায় না গেলে কিচ্ছু আসে যায় না। পৃথিবীতে আরও অনেক মহাসাগর আছে, অনেক মহাদেশ আছে। সেখানেই আমরা যাতায়াত করবো। তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব করবো। আমাদের অর্থনীতি আরও উন্নত হবে, মজবুত হবে, আরও  চাঙা হবে।’

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ইঙ্গিত করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘ভোট যারা চুরি করে, ভোট নিয়ে যারা চিরদিন খেলছে, জনগণের ভাগ্য নিয়ে যারা খেলছে, আমি তাদের (আমেরিকা) বলবো— ওই সন্ত্রাসী দলের দিকে নজর দিন। কানাডার হাইকোর্ট বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। সন্ত্রাসী ও দুর্নীতির দায়ে আমেরিকা তারেক জিয়াকে ভিসা দেয় নাই। তারা (বিএনপি) আবার তাদের (আমেরিকা) কাছে ধরণা দেয়। এতকিছু বলতে চাই না। শুধু এটাই বলবো— যারা অর্থনীতিবিদ, জ্ঞানী-গুণী আছেন… আমরা তো লেখাপড়া এত বেশি জানি না। শুধু দেশের মাটি মানুষকে চিনি। বাংলাদেশ, নদী-নালা, খাল-বিল চিনি। বাংলাদেশের মানুষের কল্যাণ কোথায়, কী করলে ভালো হবে সেটা জানি। সেটাই মাথায় রেখে দেশকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় নিয়েছি।’ 

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ যেসব কাজ করে, সব পরিকল্পিতভাবে করে। আওয়ামী লীগ এদেশের মাটি ও মানুষের সংগঠন। দেশ ও মানুষের স্বার্থে এই সংগঠন গড়ে উঠেছে। এই সংগঠনকে কেউ ধ্বংস করতে পারেনি, পারবেও না।

শনিবার (৩ জুন) বিকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সরকারের নানা উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে এদেশের উন্নতি হয়, এটাই বাস্তব। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলেই দেশের উন্নয়ন হয়- তা প্রমাণিত।আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নিয়েই বঙ্গবন্ধু যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলে স্বল্প সময়ের মধ্যে স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তোলেন। আওয়ামী লীগ নামক সংগঠন এদেশের মানুষের জন্য আন্দোলন সংগ্রামে সবসময় ভূমিকা পালন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলেই যে দেশের কল্যাণ হয়, মানুষের কল্যাণ হয়- সেটা আমরা প্রমাণ করেছি। কারণ আমরা যে কাজ করি, আওয়ামী লীগ যেসব পরিকল্পনা নেয় ও পদক্ষেপ নেয়- আমরা সব পরকল্পিতভাবে করি।

তিনি বলেন, আমাদের দেশ, মাটি, মানুষ, পরিবেশ, আমাদের দেশের ভৌগলিক অবস্থা, প্রাকৃতিক অবস্থা সবকিছু বিবেচনা করেই কিন্তু আমরা প্রতিটি প্রকল্প গ্রহণ করি। যার ফলে আমাদের প্রতিটি প্রকল্পই সাফল্য অর্জন করে এবং মানুষ তার সুফল পায়।

ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় উদ্বোধন করে শেখ হাসিনা আরো বলেন, আজকে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্বে উজ্জ্বল হয়েছে। বাংলাদেশ আজকে যে গণতান্ত্রিক ধারা অর্জন করতে পেরেছে সেখানে আওয়ামী লীগসহ আমাদের সমমনা দলগুলোকে নিয়ে আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়েই আমরা গণতন্ত্র অর্জন করতে পেরেছি। যার ফলে আজকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাজেট বাস্তবায়ন করতে পারবো বলেই আমরা এই বাজেট দিয়েছি। অথচ কিছু জ্ঞানী-গুণী টকশোতে ফাটাইয়া ফেলছে- আমরা না কি এটি বাস্তবায়ন করতে পারবো না। প্রতিবারই বাজেটের পর তারা এর বিরোধীতা করে। এবারও সেটা করছে। কিন্তু আমরা মানুষের উন্নয়নে আমাদের কাজ করে যাচ্ছি। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ নয়, সারা বিশ্বেই অর্থনৈতিক মন্দা চলছে। আমরা এর মধ্যেও দেশের অর্থনীতি ঠিক রেখেছি। এর কারণেই বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা অর্জন করেছে। 

লোডশেডিংয়ের কারণে মানুষের কষ্ট হচ্ছে জানিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, আমরা শতভাগ বিদ্যুৎ নিশ্চিত করেছি। এরপরও বৈশ্বিকভাবে তেল, গ্যাস, কয়লার দাম বাড়ায় বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যহত হচ্ছে। এখন কয়লাই পাওয়া যাচ্ছে না। আগে যারা কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিরোধীতা করেছে এখন তারাও কয়লাভিত্তিক বিদ্যুতে নজর দিয়েছে।

আমি জানি গরমে অনেকের কষ্ট হচ্ছে এখন। যদিও আমরা এর আগে লোডশেডিং দূর করেছি। তিনি বলেন, ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ ও করোনা না হলে কষ্ট হতো না। আমরা ইতোমধ্যে কাতার-ওমানের সঙ্গে চুক্তি করেছি। যেন বিদ্যুতের কারণে মানুষের কষ্ট লাঘব করতে পারি। বিদ্যুৎ না থাকলে মানুষের কষ্ট বাড়ে জানি। কারণ তারা ইতোমধ্যে অভ্যস্থ হয়ে গেছে। বিদ্যুৎ উৎপাদনে অনেক খরচ হয়। এতে সরকার ভুর্তকি দিচ্ছে। আমাদের বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হতে হবে।

ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজীর আহমেদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণের সঞ্চালনায় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সালমান ফজলুর রহমান, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কামরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান।

আজকালের খবর/ওআর








সর্বশেষ সংবাদ
ইংরেজি দৈনিক পিপল'স লাইফ উদ্বোধনে স্পিকার ও তথ্যমন্ত্রী
শিক্ষক স্বল্পতায় মুখ থুবড়ে পড়েছে সোনাগাজী সরকারি পাইলট হাইস্কুল
ফেনীতে বিএনপির রোডমার্চে লক্ষাধিক লোক সমাগমের প্রস্তুতি
হাইস্কুলে ভর্তির আবেদন শুরু ২৪ অক্টোবর
দিল্লি কি জোর করে নির্বাচন করতে বলেছে?
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
ধামরাইতে আপন ভাইকে কুপিয়ে হত্যা, বড় ভাই আটক
সম্পর্কোন্নয়ন, নির্বাচন নিয়ে শেখ হাসিনা-বাইডেন আলোচনা : হোয়াইট হাউস
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে প্রথম ধাপের পরীক্ষা নভেম্বরে
মানুষের সেবা করা একটি উত্তম ইবাদত: দয়াল বড়ুয়া
শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে মালয়েশিয়াকে হারিয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ
Follow Us
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮, ই-মেইল : বার্তা বিভাগ- newsajkalerkhobor@gmail.com বিজ্ঞাপন- addajkalerkhobor@gmail.com
কপিরাইট © আজকালের খবর সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft